নোটিশ বোর্ড

কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকীতে নজরুলগীতির সকল শুভানুধ্যায়ীকে জানাচ্ছি প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।

গান শুনুন

Print

চাঁদ হেরিছে চাঁদমুখ তার সরসীর আরশিতে

বাণী

চাঁদ হেরিছে চাঁদমুখ তার সরসীর আরশিতে।

ছুটে তরঙ্গ বাসনাভঙ্গ সে অঙ্গ পরশিতে।।

হেরিছে রজনী রজনী জাগিয়া

চকোর উতলা চাঁদের লাগিয়া,

কাঁহা পিউ কাঁহা ডাকিছে পাপিয়া

কুমুদীরে কাঁদাইতে।।

না জানি সজনী কত সে রজনী কেঁদেছে চকোরী পাপিয়া,

হেরেছে শশীরে সরসীমুকুরে ভীরু ছায়াতরু কাঁপিয়া।

কেঁদেছে আকাশে চাঁদের ঘরণী

চিরবিরহিণী রোহিণী ভরণী

অবশ আকাশ বিবশা ধরণী

কাঁদানীয়া চাঁদিনীতে।।

রাগ ও তাল

রাগঃ বাগেশ্রী

তালঃ কাওয়ালি


অডিও

শিল্পীঃ আশা ভোঁসলে

 

Print

চল্‌ চল্ চল্

বাণী

চল্‌ চল্‌ চল্‌। চল্‌ চল্‌ চল্‌।
ঊর্ধ্ব গগনে বাজে মাদল
নিম্নে উতলা ধরণীতল

অরুণ প্রাতের তরুণ দল

চল্‌ রে চল্‌ রে চল্‌

চল্‌ চল্‌ চল্‌।।

ঊষার দুয়ারে হানি আঘাত
আমরা আনিব রাঙা প্রভাত
আমরা টুটাব তিমির রাত

বাধার বিন্ধ্যাচল।

নব নবীনের গাহিয়া গান
সজীব করিব মহাশ্মশান
আমরা দানিব নতুন প্রাণ

বাহুতে নবীন বল।

চল্‌ রে নও জোয়ান

শোন্‌ রে পাতিয়া কান
মৃত্যুতোরণদুয়ারেদুয়ারে

জীবনের আহ্বান।

ভাঙ্‌ রে ভাঙ্‌ আগল

চল্‌ রে চল্‌ রে চল্‌

চল্‌ চল্‌ চল্‌।।

রাগ ও তাল

মার্চের সুর

তালঃ ত্রিমাত্রিক ছন্দ


অডিও

শিল্পীঃ আসিফ আকবর

 

Print

চম্‌’কে চম্‌’কে ধীর ভীরু পায়

বাণী

চম্‌কে চম্‌কে ধীর ভীরু পায়,

পল্লীবালিকা বনপথে যায় একেলা বনপথে যায়।।

শাড়ি তার কাঁটা লতায়, জড়িয়ে জড়িয়ে যায়,

পাগল হাওয়াতে অঞ্চল লয়ে মাতে

যেন তার তনুর পরশ চায়।।

শিরীষের পাতায় নূপুর, বাজে তার ঝুমুর ঝুমুর,

কুসুম ঝরিয়া মরিতে চাহে তার কবরীতে,

পাখী গায় পাতার ঝরোকায়।।

চাহি তার নীল নয়নে, হরিণী লুকায় বনে,

হাতে তার কাঁকন হতে মাধবী লতা কাঁদে,

ভ্রমরা কুন্তলে লুকায়।।

রাগ ও তাল

আরবি সুর

তালঃ কাহার্‌বা


অডিও

শিল্পীঃ অনুরাধা পোড়োয়াল

 

Print

ঘুমিয়ে গেছে শ্রান্ত হয়ে

বাণী

ঘুমিয়ে গেছে শ্রান্ত হয়ে আমার গানের বুলবুলি

করুণ চোখে চেয়ে আছে সাঁঝের ঝরা ফুলগুলি।।
ফুল ফুটিয়ে ভোর বেলাতে গান গেয়ে
নীরব হল কোন নিষাদের বান খেয়ে;
বনের কোলে বিলাপ করে সন্ধ্যারাণী চুল খুলি।।
কাল হতে আর ফুটবে না হায় লতার বুকে মঞ্জরী,
উঠছে পাতায় পাতায় কাহার করুণ নিশাস্‌ মর্মরি
গানের পাখি গেছে উড়ে, শূন্য নীড়

কণ্ঠে আমার নাই যে আগের কথার ভীড়
আলেয়ার এ আলোতে আর আসবে না কেউ কূল ভুলি।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ইমন-ভূপালী

তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ সতীনাথ

স্বরলিপি


 

Print

গোঠের রাখাল বলে দে রে

বাণী

গোঠের রাখাল, বলে দে রে কোথায় বৃন্দাবন।

(যথা) রাখালরাজা গোপাল আমার খেলে অনুক্ষণ।।

(যথা) দিনে রাতে মিলনরাসে

চাঁদ হাসে রে চাঁদের পাশে,

(যার) পথের ধূলায় ছড়িয়ে আছে শ্রীহরিচন্দন।।

(যথা) কৃষ্ণনামের ঢেউ ওঠে রে সুনীল যমুনায়,

(যার) তমালবনে আজো মধুর কানুর নূপুর শোনা যায়।

আজো যাহার কদম ডালে

বেণু বাজে সাঁঝসকালে,

নিত্য লীলা করে যথা মদনমোহন।।

রাগ ও তাল

রাগঃ রবিকোষ

তালঃ ত্রিতাল

 

Print

গুঞ্জা মালা গলে কুঞ্জে এসো হে কালা


বাণী

গুঞ্জা মালা গলে কুঞ্জে এসো হে কালা
বনমালী এসো দুলায়ে বনমালা॥
তব পথে বকুল ঝরিছে উতল বায়ে
দলিয়া যাবে বলে অকরুণ রাঙা পায়ে
রচেছি আসন তরুণ তমাল ছায়ে
পলাশ শিমুলে রাঙা প্রদীপ জ্বালা॥
ময়ূরে নাচাও তুমি তোমারি নূপুর তালে
বেঁধেছি ঝুলনিয়া ফুলেল কদম ডালে
তোম বিনা বনমালী বিফল এ ফুল দোল
বাঁশি বাজাবে কবে উতলা ব্রজবালা॥

রাগ ও তাল

রাগঃ মালগুঞ্জ
তালঃ ত্রিতাল

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1653516 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3856132 বার