নোটিশ বোর্ড

নজরুলগীতির সকল অতিথি ও শুভানুধ্যায়ীকে জানাচ্ছি পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ। ঈদ মোবারক।

গান শুনুন

Print

আমার হাতে কালি মুখে কালি

বাণী

আমার হাতে কালি মুখে কালি, মা আমার কালিমাখা মুখ দেখে মা পাড়ার লোকে হাসে খালি।। মোরলেখাপড়া হ’ল না মা, আমি ‘ম’ দেখিতেই দেখি শ্যামা, আমি ‘ক’ দেখতেই কালী ব’লে নাচি দিয়ে করতালি।। কালো আঁক দেখে মা ধারাপাতের ধারা নামে আঁখি পাতে, আমারবর্ণ পরিচয় হ’লো না মা তোর বর্ণ বিনা কালী। যা লিখিস মা বনের পাতায় সাগর জলে আকাশ খাতায়, আমি সে লেখা তো পড়তে পারি মূর্খ বলে দিক্‌ না গালি মা, লোকে মূর্খ ব’লে দিক্‌ না গালি।।

রাগ ও তাল

রাগঃ মালকোষ তালঃ দাদ্‌রা
 

Print

আমার মা ত্বং হি তারা

বাণী

আমার মা ত্বং হি তারা তুমি ত্রিগুণধরা পরাৎপরা মা ত্বং হি তারা। আমি জানি মা ও দীনদয়াময়ী তুমি দুর্গমেতে দুঃখহরা, মা ত্বং হি তারা। তুমি জলে তুমি স্থলে তুমি আদ্যমূলে গো মা, আছ সর্বঘটে অর্ঘ্যপুটে সাকার আকার নিরাকারা মা ত্বং হি তারা। তুমি সন্ধ্যা তুমি গায়ত্রী তুমি জগদ্ধাত্রী গো মা অকুলের প্রাণকর্ত্রী সদা শিবের মনোহরা। মা ত্বং হি তারা।।
 

Print

আমার নয়নে নয়ন রাখি

বাণী

আমার নয়নে নয়ন রাখি' পান করিতে চাও কোন অমিয়।

আছে এ আঁখিতে উষ্ণ আঁখি-জল মধুর সুধা নাই পরান-প্রিয়।।

     ওগো ও শিল্পী, গলাইয়া মোরে

     গড়িতে চাহ কোন মানস-প্রতিমারে,

ওগো ও পূজারি, কেন এ আরতি জাগাতে পাষাণ- প্রণয়-দেবতারে।

এ দেহ-ভৃঙ্গারে থাকে যদি মদ ওগো প্রেমাষ্পদ, পিও গো পিও।।

     আমারে কর গুণী, তোমার বীণা

     কাঁদিব সুরে সুরে, কণ্ঠ-লীনা

     আমার মুখের মুকুরে কবি

হেরিতে চাহ মোরে কর গো চন্দন তপ্ত তনু তব শীতল করিও ।।

 

১. এই অনুচ্ছেদটি গ্রামোফোন রেকর্ডে গাওয়া হয়নি।

রাগ ও তাল

রাগঃ মালবশ্রী মিশ্র

তালঃ কাহার্‌বা


অডিও

শিল্পীঃ মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়


 

 

Print

আমার গানের মালা

বাণী

আমার গানের মালা আমি করব কারে দান

মালার ফুলে জড়িয়ে আছে করূণ অভিমান।

মালা করব কারে দান।।

চোখে মলিন কাজল লেখা

কণ্ঠে কাঁদে কুহু কেকা,

কপোলে যার অশ্রু-রেখা একা যাহার প্রাণ

মালা করব কারে দান।।

কাথায় আমার কাঁটার বেদন মালায় সূচির জ্বালা,

কণ্ঠে দিতে সাহস না পাই অভিশাপের মালা (ঐ)।

বিরহে যার প্রেম-আরতি

আঁধার লোকের অরুন্ধতী

নাম না জানা সেই তপতী তারি তরে গান

মালা করব তারে দান।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু-বারোয়া

তালঃ দ্রুত-দাদ্‌রা


 

 

Print

আমার গহীন জলের নদী

বাণী

আমার        গহীন জলের নদী

আমি          তোমার জলে ভেসে রইলাম জনম অবধি।।

ও ভাই        তোমার বানে ভেসে গেল আমার বাঁধা ঘর

আমি          চরে এসে বস্‌লাম রে ভাই ভাসালে সে চর।

এখন          সব হারিয়ে তোমার জলে রে আমি ভাসি নিরবধি।।

                ঘর ভাঙিলে ঘর পাব ভাই ভাঙ্‌লে কেন মন

ও ভাই        হারালে আর পাওয়া না যায় মনেরি রতন।

ও ভাই        জোয়ারে মন ফেরে না আর রে ও সে ভাটিতে হারায় যদি।।

তুমি           যখন ভাঙ রে নদী (ভাঙ যখন কূল রে নদী) ভাঙ একই ধার

আর           মন যখন ভাঙ রে নদী দুই কূল ভাঙ তার

ও ভাই        চর পড়ে না মনের কূলে রে

ও সে         একবার সে ভাঙে যদি, ও ভাই একবার সে ভাঙে যদি।।

রাগ ও তাল

রাগঃ 

তালঃ কাহার্‌বা

Print

আমার কোন কুলে আজ ভিড়লো তরী


বাণী

আমারকোন্‌ কূলে আজ ভিড়লো তরী
এ কোন সোনার গাঁয়
আমারভাটির তরী আবার কেন
উজান যেতে চায়
তরীউজান যেতে চায়
কোন কূলে মোর ভিড়লো তরী
এ কোন্‌ সোনার গাঁয়।।
আমারদুঃখেরে কান্ডারী করি’
আমিভাসিয়েছিলাম ভাঙা তরী
তুমিডাক দিলে কে স্বপন–পরী
নয়ন ইশারায়।।
নিভিয়ে দিয়ে ঘরের বাতি
ডেকেছিলে ঝড়ের রাতি
তুমিকে এলে মোর সুরের সাথী গানের কিনারায়।
তুমি কে এলে? ওগো কে এলে মোর সুরের সাথী
গানের কিনারায়?
সোনার দেশের সোনার মেয়ে,
ওগো তুমিহবে কি মোর তরীর নেয়ে,
ভাঙ্গা তরী চলো বেয়ে রাঙা অলকায়।।

১. ‘অন্তরা’ অংশ গ্রামোফোন রেকর্ডে গাওয়া হয়নি।

রাগ ও তাল

রাগঃ খাম্বাজ-পিলু
তালঃ দাদ্‌রা

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1698401 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3898952 বার