নোটিশ বোর্ড

নজরুলগীতির সকল অতিথি ও শুভানুধ্যায়ীকে জানাচ্ছি বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

গান শুনুন

সকল গানের বাণী

Print

বিদেশিনী বিদেশিনী চিনি চিনি


বাণী

বিদেশিনী বিদেশিনী চিনি চিনি
ঐ চরণের নূপুর রিনিঝিনি॥
দীপ জেগে ওঠে পাথার জলে তোমার চরণ-ছন্দে,
নাচে গাঙচিল সিন্ধু-কপোত তোমারি সুরে আনন্দে।
মুকুতা কাঁদিছে হার্‌ হ’তে ওগো তোমার বেণীর বন্ধে।
মলয়ে শুনেছি তোমার বলয় চুড়ির রিনিঠিনি॥
সাগর-সলিল হয়েছে সুনীল তোমার তনুর বর্ণে,
তোমার আঁখির আলো ঝলমল দেবদারু তরু-পর্ণে।
অস্ত-তপন হয়েছে রঙিন তোমার হাসির স্বর্ণে
শঙ্খ-ধবল বেলাভূমে খেল সাগর-নটিনী॥

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ ফের্‌তা (কাহার্‌বা ও দাদ্‌রা)

Print

বিরহের অশ্রু সায়রে বেদনার শতদল


বাণী

বিরহের অশ্রু সায়রে বেদনার শতদল

উদাসী অশান্ত বায়ে টলে টলমল টলমল।।

     তব রাঙা পদতলে, প্রিয়

     এই শতদলে রাখিয়ো,

বাজাইও মধুকর বীণা অনুরাগ-চঞ্চল।।

ঝড় এলো, এলো এলায়ে মেঘের কুন্তল

তুমি কোথায়, হায়, নিরাশায় ঝরে কমল-দল।

      কেমনে কাটে তব বেলা

     কোথা কোন লোকে একেলা;

দুই কূলে  দুই জন কাঁদি, মাঝে নদী ছলছল।।


রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ কাহারবা

Print

বিরহের গুলবাগে মোর ভুল ক'রে আজ ফুটলো কি বকুল


বাণী

বিরহের গুলবাগে মোর ভুল ক'রে আজ ফুটলো কি বকুল।

অবেলায় কুঞ্জবীথি মুঞ্জরিতে এলে কি বুলবুল।

এলে কি পথ ভুলে মোর আঁধার রাতে ঘুম-ভাঙানো চাঁদ,

অপরাধ ভুলেছ কি, ভেঙেছে কি অভিমানের বাঁধ।

মরণ আজ মধুর হলো পেয়ে তব চরণ রাতুল।।

ওগো প্রদীপ নিভে আসে ইহারি ক্ষীণ আলোকে,

দেখে নিই শেষ দেখা যত সাধ আছে চোখে।

হে চির-সুন্দর মোর, বিদায়-সন্ধ্যা মম

রাঙালে এ কি রঙে উদয় ঊষার সম

ঝ'রে পড়ুক তব পায়ে আমার এই জীবন-মুকুল।।


রাগ ও তাল

রাগঃ পাহাড়ি মিশ্র

তালঃ রূপক

Print

বুল্‌বুলি নীরব নার্গিস বনে

বাণী

বুল্‌বুলি নীরব নার্গিসবনে।

ঝরা বনগোলাপের বিলাপ শোনে।।

শিরাজের নওরোজে ফাল্গুন মাসে

যেন তার প্রিয়ার সমাধির পাশে,

তরুণ ইরানকবি কাঁদে নিরজনে।।

উদাসীন আকাশ থির হয়ে আছে,

জলভরা মেঘ লয়ে বুকের কাছে।

সাকির শরাবের পিয়ালার পরে

সকরুণ অশ্রুর বেল ফুল ঝরে,

চেয়ে আছে ভাঙা চাঁদ মলিনআননে।।

রাগ ও তাল

রাগঃ নৌরোচ্‌কা

তালঃ ত্রিতাল


অডিও

শিল্পীঃ ইন্দ্রানী সেন

 

Print

বৃথা তুই কাহার 'পরে করিস অভিমান


বাণী

বৃথা তুই কাহার পরে করিস অভিমান

পাষাণ-প্রতিমা সে যে হৃদয় পাষাণ।।

রূপসীর নয়নে জল নয়ন-শোভার তরে

ও শুধু মেঘের লীলা নভে যে বাদল ঝরে

চাতকেরই তরে তাহার কাঁদে না পরান।।

প্রণয়ের স্বপন-মায়া,ধরিতে মিলায় কায়া

গো-ধূলির রঙের খেলা ক্ষণে অবসান।।


রাগ ও তাল

রাগঃ জৌনপুরী

তালঃ দাদরা

Print

বেণুকার বনে কাঁদে বাতাস বিধুর


বাণী

বেণুকার বনে কাঁদে বাতাস বিধুর - 
সে আমারি গান, প্রিয় সে আমারি সুর॥
হলুদ চাঁপার ডালে সহসা নিশীথ কালে
ডেকে ওঠে সাথি হারা পাখি ব্যথাতুর॥
নদীর ভাটির স্রোতে শ্রান্ত সাঁঝে
অশ্রু জড়িত মোর সুর যে বাজে।
সে সুরের আভাসে আঁখিপুরে জল আসে,
মনে পড়ে চলে-যাওয়া প্রিয়রে সুদূর॥

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ কাহার্‌বা

Print

বেদনার সিন্ধু-মন্থন শেষ, হে ইন্দ্রানী


বাণী

বেদনার সিন্ধু-মন্থন শেষ, হে ইন্দ্রানী,

জাগো, জাগো করে সুধা-পাত্রখানি।।

রোদন-সায়রে ধুয়ে পুষ্পতনু

এসো অশ্রুর বরষার ইন্দ্র-ধনু,

হের কুলে অনুরাগে জীবন-দেবতা জাগে

     ধরিবে বলিয়া তব পদ্মপাণি।।

তব দুখ-রাত্রির তপস্যা শেষ- এলো শুভ দিন,

অতল-তমসা-লক্ষ্মী গো তুমি অমরার

এসো এসো পার হ'য়ে ব্যথার পাথার।

অশ্রুত অশ্রুর নীরবতা কর দূর

     কূলে কূলে হাসির তরঙ্গ হানি।।


রাগ ও তাল

রাগঃ সিন্ধু

তালঃ ত্রিতাল

Print

বেদিয়া বেদিনী ছুটে আয়


বাণী

বেদিয়া বেদিনী ছুটে আয়,আয়,আয়

ধাতিনা ধাতিনা তিনা ঢোলক মাদল বাজে

           বাঁশিতে পরান মাতায়।।

দলে দলে নেচে নেচে আয় চলে

আকাশের শামিয়ানা তলে

বর্শা তীর ধনুক ফেলে আয় আয় রে

           হাড়ের নূপুর প'রে পায়।।

বাঘ-ছাল প'রে আয় হৃদয়-বনের শিকারি

ঘাগরা প'রে প'রে পলার মালা আয় বেদের নারী

মহুয়ার মধু পিয়ে ধুতুরা ফুলের পিয়ালায়।।


রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ কাহারবা

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1593166 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3795271 বার