নোটিশ বোর্ড

নজরুল সংগীতে অমূল্য অবদান রেখে যাওয়া বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী সুধীন দাসের মৃত্যুতে গভীর শ্রদ্ধা ও শোক জ্ঞাপন করছি।

গান শুনুন

সকল গানের বাণী

Print

মেঘ-মেদুর গগন কাঁদে হুতাশ পবন


বাণী

মেঘ-মেদুর গগন কাঁদে হুতাশ পবন

কে বিরহী রহিরহিদ্বারে আঘাত হানো

শাওন ঘন ঘোর ঝরিছে বারি অঝোর

কাঁপিছে কুটির মোর দীপ নেভানো।।

বজ্রে বাজিয়া ওঠে তব সঙ্গীত,

বিদ্যুতে ঝলকিছে আঁখি-ইঙ্গিত,

চাঁচর চিকুরে তব ঝড় দুলানো, ওগো মন ভুলানো।।

এক হাতে, সুন্দর, কুসুম ফোটাও!

আর হাতে নিষ্ঠুর মুকুল ঝরাও

হে পথিক, তব সুর অশান্ত ব‍ায়

জন্মান্তর হতে যেন ভেসে আসে হায়!

বিজড়িত তব স্মৃতি চেনা অচেনায় প্রাণ কাঁদানো।।


রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু-বারোঁয়া

তালঃ কাহারবা

Print

মেঘলা নিশি ভোরে


বাণী

মেঘলা নিশি ভোরে মন যে কেমন করে

তারি তরে গো মেঘ-বরণ যার কেশ।

বুঝি তাহারি লাগি হয়েছে বৈরাগী

গেরুয়া রাঙা গিরিমাটির দেশ।।

মৌরি ফুলের ক্ষেতে, মৌমাছি ওঠে মেতে

এলিয়েছিল কেশ কি গো তার এই পথে সে যেতে।

তার ডাগর চোখের ঝিলিক লেগে রাত হয়েছে শেষ (গো)।।

শিরিষ পাতায় ঝিরিঝিরি, বাজে নূপুর তারি

সোনাল ডালে দোলে তাহার কামরাঙা রঙ শাড়ি।

হয়েছি মন-ভিখারি কোন্‌ শিকারি আমি

উঠি পাহাড় চূড়ায়, ঝর্না জলে নামি

কালো পাথর দেখে জাগে কার চোখের আবেশ গো।।

রাগ ও তাল

আরবি সুর

তালঃ কাহার্‌বা


অডিও

শিল্পীঃ এস ডি বর্মন

 

Print

মেঘলা-মতীর ধারা জলে কর স্নান


বাণী

মেঘলা-মতীর ধারা জলে কর স্নান (হে ধরণী)

স্নিগ্ধ শীতল মেঘ-চন্দনে জুড়াও তাপিত প্রাণ (হে ধরণী)।।

      তব বৈশাখী ব্রত শেষে

      শ্যাম সুন্দর বেশে

নব দেবতা এলো হেসে লহ আশিস বারি দান (হে তাপসী)।।

      তব ভূষণ-হীন উপবাস ক্ষীণ কায়

      হোক নবতর শ্যাম সমারোহে, পুষ্পিত সুষমায়

      তীর্থ-সলিলে কৃষ্ণা

      দূর কর গো তৃষ্ণা

শ্যাম দরশ পরশ ব্যাকুলা হরষে গাহ গান (হে তপতী)।।


রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ দাদরা

Print

মেঘে মেঘে অন্ধ অসীম আকাশ


বাণী

মেঘে মেঘে অন্ধ অসীম আকাশ।

আমারি মত কাঁদে দিশাহারা

নয়ন পুতলি চাঁদে হারায়ে

হারায়ে তারি নয়ন তারা।।

আমার ভুবন আঁধারে ভরিয়া

নয়ন মণি মোর কে নিল হরিয়া

প্রিয় নাম ধরে তারে খুঁজি দিকে দিকে

শূন্য গগনে শুধু ঝরে বারি ধারা।।

হে আলোর রাজা বল বল মোরে

মোর আঁখি পুতলি কেন নিলে হরে

তব উৎসব সভা হতো না কি উজল

আমার আঁখির আলো ছাড়া।।


রাগ ও তাল

রাগঃ জয়জয়ন্তী

তালঃ ত্রিতাল

Print

মেঘের হিন্দোলা দেয় পূব-হাওয়াতে দোলা


বাণী

মেঘের হিন্দোলা দেয় পূব-হাওয়াতে দোলা।

কে দুলিবি এ-দোলায় আয় আয় ওরে কাজ-ভোলা।।

মেঘ-নটীর নূপুর

ঐ বাজে ঝুমুর ঝুমুর,

শীর্ণা-তুন ঝর্না তরঙ্গ-উতরোলা।।

ফুল-পসারিণী ঐ দুলিছে বনানী

বিনিমূলে বিলায় সে সুরভি, ফুল ছানি।

আজ ঘরে ঘরে ফুল-দোল্‌ সব বন্ধ দুয়ার খোলা।।

জলদ-মৃদঙ বাজে

গভীর ঘন আওয়াজে,

বাদলা-নিশীথ দুলে ঐ তিমির-কুন্তলা।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু-কাফি

তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ রওশন আরা সোমা

 

Print

মেরে শ্রীকৃষ্ণ ধরম শ্রীকৃষ্ণ করম


বাণী

মেরে শ্রীকৃষ্ণ ধরম শ্রীকৃষ্ণ করম শ্রীকৃষ্ণহি তন-মন-প্রাণ।
সব্‌সে নিয়ারে পিয়ারে শ্রীকৃষ্ণজী নয়নুঁকে তারে সমান॥
দুখ সুখ সব শ্রীকৃষ্ণ মাধব কৃষ্ণহি আত্মা জ্ঞান
কৃষ্ণ কণ্ঠহার আঁখকে কাজর কৃষ্ণ হৃদয়মে ধ্যান
শ্রীকৃষ্ণ ভাষা শ্রীকৃষ্ণ আশা মিটায়ে পিয়াস উয়ো নাম (মেরে)
স্বামী-সখা-পিতা-মাতা শ্রীকৃষ্ণজী ভ্রাতা-বন্ধু-সন্তান॥

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ কাহার্‌বা

Print

মেষ চারণে যায় নবী কিশোর


বাণী

মেষ চারণে যায় নবী কিশোর রাখাল বেশে

নীল রেশমি রুমাল বেঁধে তার চারু- চাঁচর কেশে

তাঁর রাঙা পদতলে পুলকে ধরা টলে

তাঁর রূপ -লাবনির ঢলে মরুভূমি গেল ভেসে।।

তাঁর মুখে রহে চাহি মেষ-শিশু তৃণ ভুলি‌'

বিশ্বের শাহানশাহ আজ মাখে গোঠের ধূলি,

তাঁর চরণ-নখরে কোটি চাঁদ কেঁদে মরে

তাঁর ছায়া ক'রে চলে আকাশে মেঘ এসে।।

কিশোর নবী গোঠে চলে

তাঁর চরণ-ছোঁয়ায় পথের পাথর মোম হয়ে যায় গ'লে

তসলিম জানায় পাহাড় চরণে ঝুকে তাঁহার

নারাঙ্গি,আঙুর,খরজুর,পায়ে নজরানা দেয় হেসে।।


রাগ ও তাল

রাগঃ 

তালঃ দ্রুত দাদরা

Print

মোরা এক বৃন্তে দু’টি কুসুম হিন্দু-মুসলমান

বাণী

মোরা এক বৃন্তে দু’টি কুসুম হিন্দু-মুসলমান।

মুসলিম তার নয়ন-মণি, হিন্দু তাহার প্রাণ।।

      এক সে আকাশ মায়ের কোলে

      যেন রবি শশী দোলে,

এক রক্ত বুকের তলে, এক সে নাড়ির টান।।

এক সে দেশের খাই গো হাওয়া, এক সে দেশের জল,

এক সে মায়ের বক্ষে ফলাই একই ফুল ও ফল।

   এক সে দেশের মাটিতে পাই

   কেউ গোরে কেউ শ্মাশানে ঠাঁই

এক ভাষাতে মা’কে ডাকি, এক সুরে গাই গান।। 

 

নাটিকাঃ‘পুতুলের বিয়ে’

রাগ ও তাল

রাগঃ ভৈরবী

তালঃ কাহারবা

 

 

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1735842 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3933844 বার