নোটিশ বোর্ড

সম্মানিত অতিথি আপনার প্রিয় নজরুলগীতিটি এই ওয়েব সাইটে খুঁজে না পেলে অনুগ্রহ করে আমাদের জানান। আমরা যথা-শীঘ্র সেইটি সংযোজন করার চেষ্টা করবো।

গান শুনুন

সকল গানের বাণী

Print

মেঘ-বিহীন খর-বৈশাখে


বাণী

মেঘ-বিহীন খর-বৈশাখে

তৃষায় কাতর চাতকী ডাকে।।

সমাধি-মগ্না উমা তপতী

রৌদ্র যেন তার তেজঃ জ্যোতি,

ছায়া মাগে ভীতা ক্লান্তা কপোতী

কপোত-পাখায় শুষ্ক শাখে।।

শীর্ণা তপিনী বালুচর জড়ায়ে

তীর্থে চলে যেন শ্রান্ত পায়ে।

দগ্ধ-ধরণী যুক্ত-পাণি

চাহে আষাঢ়ের আশিস বাণী

যাপিয়া নির্জলা একদশীর তিথি

পিপাসিত আকাশ যাচে কাহাকে।।

রাগ ও তাল

 রাগঃ সাবন্ত সারং

তালঃ ত্রিতাল


স্বরলিপি


 

Print

মেঘ-মেদুর গগন কাঁদে হুতাশ পবন


বাণী

মেঘ-মেদুর গগন কাঁদে হুতাশ পবন

কে বিরহী রহিরহিদ্বারে আঘাত হানো

শাওন ঘন ঘোর ঝরিছে বারি অঝোর

কাঁপিছে কুটির মোর দীপ নেভানো।।

বজ্রে বাজিয়া ওঠে তব সঙ্গীত,

বিদ্যুতে ঝলকিছে আঁখি-ইঙ্গিত,

চাঁচর চিকুরে তব ঝড় দুলানো, ওগো মন ভুলানো।।

এক হাতে, সুন্দর, কুসুম ফোটাও!

আর হাতে নিষ্ঠুর মুকুল ঝরাও

হে পথিক, তব সুর অশান্ত ব‍ায়

জন্মান্তর হতে যেন ভেসে আসে হায়!

বিজড়িত তব স্মৃতি চেনা অচেনায় প্রাণ কাঁদানো।।


রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু-বারোঁয়া

তালঃ কাহারবা

Print

মেঘলা নিশি ভোরে

বাণী

মেঘলা নিশি ভোরে মন যে কেমন করে
তারি তরে গো মেঘ-বরণ যার কেশ।
বুঝি তাহারি লাগি’ হয়েছে বৈরাগী
গেরুয়া রাঙা গিরিমাটির দেশ।।

মৌরি ফুলের ক্ষেতে, মৌমাছি ওঠে মেতে
এলিয়েছিল কেশ কি গো তার এই পথে সে যেতে।
তার ডাগর চোখের ঝিলিক লেগে রাত হয়েছে শেষ (গো)।।

শিরিষ পাতায় ঝিরিঝিরি, বাজে নূপুর তারি
সোনাল ডালে দোলে তাহার কামরাঙা রঙ শাড়ি।
হয়েছি মন-ভিখারি কোন্‌ শিকারি আমি
উঠি পাহাড় চূড়ায়, ঝর্না জলে নামি
কালো পাথর দেখে জাগে কার চোখের আবেশ গো।।

রাগ ও তাল

আরবি সুর

তালঃ কাহার্‌বা

অডিও

শিল্পীঃ এস ডি বর্মন

ভিডিও

Print

মেঘলা-মতীর ধারা জলে কর স্নান


বাণী

মেঘলা-মতীর ধারা জলে কর স্নান (হে ধরণী)

স্নিগ্ধ শীতল মেঘ-চন্দনে জুড়াও তাপিত প্রাণ (হে ধরণী)।।

      তব বৈশাখী ব্রত শেষে

      শ্যাম সুন্দর বেশে

নব দেবতা এলো হেসে লহ আশিস বারি দান (হে তাপসী)।।

      তব ভূষণ-হীন উপবাস ক্ষীণ কায়

      হোক নবতর শ্যাম সমারোহে, পুষ্পিত সুষমায়

      তীর্থ-সলিলে কৃষ্ণা

      দূর কর গো তৃষ্ণা

শ্যাম দরশ পরশ ব্যাকুলা হরষে গাহ গান (হে তপতী)।।


রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ দাদরা

Print

মেঘে মেঘে অন্ধ অসীম আকাশ

বাণী

মেঘে মেঘে অন্ধ অসীম আকাশ।
আমারি মত কাঁদে দিশাহারা
নয়ন পুতলি চাঁদে হারায়ে
হারায়ে তারি নয়ন তারা।।
আমার ভুবন আঁধারে ভরিয়া
নয়ন মণি মোর কে নিল হরিয়া
প্রিয় নাম ধরে তারে খুঁজি দিকে দিকে
শূন্য গগনে শুধু ঝরে বারি ধারা।।
হে আলোর রাজা বল বল মোরে
মোর আঁখি পুতলি কেন নিলে হ’রে
তব উৎসব সভা হ’তো না কি উজল
আমার আঁখির আলো ছাড়া।।

রাগ ও তাল

রাগঃ জয়জয়ন্তী

তালঃ ত্রিতাল

ভিডিও

Print

মেঘের ডমরু ঘন বাজে

বাণী

মেঘের ডমরু ঘন বাজে।
	বিজলি চমকায়
	আমার বনছায়,
মনের ময়ূর যেন সাজে॥
সঘন শ্রাবণ গগন-তলে
রিমি ঝিমি ঝিম্ নবধারা জলে,
চরণ-ধ্বনি বাজায় কে সে —
নয়ন লুটায় তারি লাজে॥
ওড়ে গগন-তলে গানের বলাকা,
শিহরণ জাগে উজ্জ্বল পাখা।
সুদূরের মেঘে অলকার পানে
ভেসে চ’লে যায় শ্রাবণের গানে,
কাহার ঠিকানা খুঁজিয়া বেড়ায় —
হৃদয়ে কার স্মৃতি রাজে॥

রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ ত্রিতাল

ভিডিও

Print

মেঘের হিন্দোলা দেয় পূব-হাওয়াতে দোলা


বাণী

মেঘের হিন্দোলা দেয় পূব-হাওয়াতে দোলা।

কে দুলিবি এ-দোলায় আয় আয় ওরে কাজ-ভোলা।।

মেঘ-নটীর নূপুর

ঐ বাজে ঝুমুর ঝুমুর,

শীর্ণা-তুন ঝর্না তরঙ্গ-উতরোলা।।

ফুল-পসারিণী ঐ দুলিছে বনানী

বিনিমূলে বিলায় সে সুরভি, ফুল ছানি।

আজ ঘরে ঘরে ফুল-দোল্‌ সব বন্ধ দুয়ার খোলা।।

জলদ-মৃদঙ বাজে

গভীর ঘন আওয়াজে,

বাদলা-নিশীথ দুলে ঐ তিমির-কুন্তলা।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু-কাফি

তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ রওশন আরা সোমা

 

Print

মেরে শ্রীকৃষ্ণ ধরম শ্রীকৃষ্ণ করম


বাণী

মেরে শ্রীকৃষ্ণ ধরম শ্রীকৃষ্ণ করম শ্রীকৃষ্ণহি তন-মন-প্রাণ।
সব্‌সে নিয়ারে পিয়ারে শ্রীকৃষ্ণজী নয়নুঁকে তারে সমান॥
দুখ সুখ সব শ্রীকৃষ্ণ মাধব কৃষ্ণহি আত্মা জ্ঞান
কৃষ্ণ কণ্ঠহার আঁখকে কাজর কৃষ্ণ হৃদয়মে ধ্যান
শ্রীকৃষ্ণ ভাষা শ্রীকৃষ্ণ আশা মিটায়ে পিয়াস উয়ো নাম (মেরে)
স্বামী-সখা-পিতা-মাতা শ্রীকৃষ্ণজী ভ্রাতা-বন্ধু-সন্তান॥

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ কাহার্‌বা

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 2301500 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 4497361 বার