নোটিশ বোর্ড

নজরুলগীতির সকল অতিথি ও শুভানুধ্যায়ীকে জানাচ্ছি পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ। ঈদ মোবারক।

গান শুনুন

সকল গানের বাণী

Print

সুন্দর অতিথি এসো এসো কুসুম-ঝরা বনপথে


বাণী

সুন্দর অতিথি এসো, এসো, কুসুম-ঝরা বনপথে,

তোমার আশায় মুকুলগুলি চেয়ে আছে প্রভাত হ'তে।।

     তোমার আসার অনুরাগে

     পাতায় পাতায় শিহর লাগে

কণ্ঠে কুহুর কুজন জাগে ভাসলো আকাশ আলোর স্রোতে।।

চলতে যদি বেদনা পায় তব কোমল চরণ-কমল

বন-বীথিকার পথ-ধূলি ঝরা পল্লব পাপড়ি-দল।

     পেয়ে আজি আসার আভাস

     উতল হ'ল মন্দ বাতাস

চেয়ে আছে উদাসী আকাশ আসবে কবে সোনার রথে।।


রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ কাহারবা

Print

সুরে ও বাণীর মালা দিয়ে

বাণী

সুরে ও বাণীর মালা দিয়ে তুমি আমারে ছুঁইয়াছিলে।

অনুরাগকুম্কুম দিলে দেহে মনে, বুকে প্রেম কেন নাহি দিলে।।

বাঁশি বাজাইয়া লুকালে তুমি কোথায়

যে ফুল ফোটালে সে ফুল শুকায়ে যায়

কী যেন হারায়ে প্রাণ করে হায় হায়

কী চেয়েছিলে কেন কেড়ে নাহি নিলে।।

জড়ায়ে ধরিয়া কেন ফিরে গেলে বল কোন্ অভিমানে,

কেন জাগে নাকো আর সে মাধুরী রসআনন্দপ্রাণে।

তোমারে বুঝি গো বুঝেছিনু আমি ভুল

এসেছিলে তুমি ফোটাতে প্রেমমুকুল,

কেন আঘাত করিয়া প্রিয়তম, সেই ভুল নাহি ভাঙাইলে।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু

তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ সেলিমা

 

Print

সৃজন ছন্দে আনন্দে

বাণী

সৃজন ছন্দে আনন্দে নাচো নটরাজ

হে মহকাল প্রলয়তাল ভোলো ভোলো।।

ছড়াক তব জটিল জটা

শিশুশশীর কিরণছটা

উমারে বুকে ধরিয়া সুখে দোলো দোলো।।

মন্দস্রোতা মন্দাকিনী সুরধুনীতরঙ্গে

সঙ্গীত জাগাও হে তব নৃত্যবিভঙ্গে।

ধুতরা ফুল খুলিয়া ফেলি

জটাতে পর চম্পা বেলী

শ্মশানে নব জীবন, শিব, জাগিয়ে তোলো।।

রাগ ও তাল

রাগঃ তিলককামোদ

তালঃ ঝাঁপতাল


অডিও

শিল্পীঃ ইন্দ্রানী গাঙ্গুলী

শিল্পীঃ শিমুল ইউসুফ


 

Print

সে চ'লে গেছে ব'লে কি গো


বাণী

সে চ'লে গেছে ব'লে কি গো স্মৃতিও হায় যায় ভোলা

ওগো মনে হ'লে তারি কথা আজো মর্মে সে মোর দেয় দোলা।।

ঐ প্রতিটি ধূলি কণায়

আছে তার ছোঁওয়া লেগে হেথায়,

আজো তাহারি আসার আশায়, রাখি মোর ঘরেরই সব দ্বার খোলা।।

হেথা সে এসেছিল যবে

ঘর ভরেছিল ফুল-উৎসবে,

মোর কাজ ছিল শুধু ভবে তার হার গাঁথা আর ফুল তোলা।।

সে নাই ব'লে বেশি ক'রে

শুধু তার কথাই মনে পড়ে,

হেরি তার ছবি ভুবন ভ'‌রে তারে ভুলিতে মিছে বলা।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পাহাড়ি-মাঢ়

তালঃ কাহার্‌বা


অডিও

শিল্পীঃ ফেরদৌসি রহমান

শিল্পীঃ জুলি শর্মিলী আলম


 

Print

সেই রবিয়ল আউয়ালেরই চাঁদ এসেছে ফিরে

বাণী

সেই রবিয়ল আউয়ালেরই চাঁদ এসেছে ফিরে
		ভেসে আকুল অশ্রুনীরে।
আজ মদিনার গোলাপ বাগে বাতাস বহে ধীরে
		ভেসে আকুল অশ্রুনীরে।।
	তপ্ত বুকে আজ সাহারার
	উঠেছে রে ঘোর হাহাকার
মরুর দেশে এলো আঁধার শোকের বাদল ঘিরে।।
চবুতরায় বিলাপ করে কবুতরগুলি খোঁজে নবীজীরে।
কাঁদিছে মেষশাবক, কাঁদে বনের বুলবুলি গোরস্থান ঘিরে।।
	মা ফাতেমা লুটিয়ে প’ড়ে
	কাঁদে নবীর বুকের পরে
আজ দুনিয়া জাহান কাঁদে কর হানি শিরে।।

রাগ ও তাল

রাগঃ

তালঃ বৈতালিক

ভিডিও

Print

সেদিন অভাব ঘুচবে কি মোর যেদিন তুমি আমার হবে

বাণী

সেদিন অভাব ঘুচবে কি মোর যেদিন তুমি আমার হবে
আমার ধ্যানে আমার জ্ঞানে প্রাণ মন মোর ঘিরে রবে।।
	রইবে তুমি প্রিয়তম
	আমার দেহে আত্মা-সম
জানি না সাধ মিটবে কি-না -  তেমন করেও পাব যবে।।
পাওয়ার আমার শেষ হবে না পেয়েও তোমায় বক্ষতলে
সাগর মাঝে মিশে গিয়েও নদী যেমন ব’য়ে চলে।
	চাঁদকে দেখে পরান জুড়ায়
	তবু দেখার সাধ কি ফুরায়
মিটেছেল সাধ কি রাধার নিত্য পেয়েও নীল-মাধবে।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ষট্ টোড়ি

তালঃ ত্রিতাল

Print

সেদিন ছিল কি গোধূলি

বাণী

সেদিন ছিল কি গোধূলিলগন শুভদৃষ্টি ক্ষণ।

চেয়েছিল মোর নয়নের পানে যেদিন তব নয়ন।।

সেদিন বকুল শাখে কি গো আঙিনাতে

ডেকে উঠেছিল কুহুকেকা এক সাথে,

অধীর নেশায় দুলে উঠেছিল মনের মহুয়া বন।।

হে প্রিয়, সেদিন আকাশ হতে কি তারা পড়েছিল ঝরে,

যেদিন প্রথম ডেকেছিলে তুমি মোর ডাকনাম ধরে।

(প্রিয়) যেদিন প্রথম ছুঁয়েছিলে ভালবেসে

আকাশে কি বাঁকা চাদ উঠেছিল হেসে,

শঙ্খ সেদিন বাজায়েছিল কি পাষাণের নারায়ণ।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ঝিঁঝিট

তালঃ কাহার্‌বা

 

Print

সেদিন বলেছিলে এই সে ফুলবনে


বাণী

সেদিন ব’লেছিলে এই সে ফুলবনে,
আবার হবে দেখা ফাগুনে তব সনে॥
ফাগুন এলো ফিরে লাগে না মন কাজে,
আমার হিয়া ভরি, উদাসী বেণু বাজে;
শুধাই তব কথা দখিনা সমীরণে॥
শপথ ভুলিয়াছ বন্ধু, ভুলিলে পথ কি গো,
বারেক দিয়ে দেখা লুকালে মায়ামৃগ।
আঁচলে ফুল লয়ে হল’ না মালা গাঁথা,
আসার পথ তব ঢাকিল ঝরা পাতা;
পূজার চন্দন শুকালো অঙ্গনে॥

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ ইন্দ্রাণী সেন

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1694464 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3895563 বার