ভৈরবী

  • নিশি ভোর হলো জাগিয়া পরান-পিয়া

    বাণী

    নিশি ভোর হলো জাগিয়া, পরান-পিয়া
    কাঁদে ‘পিউ কাহাঁ’ পাপিয়া, পরান-পিয়া।।
    	ভুলি’ বুলবুলি-সোহাগে
    	কত গুল্‌বদনী জাগে
    রাতি গুল্‌সনে যাপিয়া, পরান-পিয়া।।
    	জেগে রয়, জাগার সাথী
    	দূরে চাঁদ, শিয়রে বাতি
    কাঁদি ফুল-শয়ন পাতিয়া, পরান-পিয়া।।
    	গেয়ে গান চেয়ে কাহারে
    	জেগে র’স কবি এপারে
    দিলি দান কারে এ হিয়া, পরান-পিয়া।।
    
  • ফিরে ফিরে কেন তারই স্মৃতি

    বাণী

    ফিরে ফিরে কেন তারই স্মৃতি
    মোরে কাঁদায় নিতি যে ফিরিবে না আর।
    ফিরায়েছি যা’য় কাঁদাইয়া হায়
    সে কেন কাঁদায় মোরে বারেবার।।
    তারই দেওয়া ফুলমালা, যারে দলিয়াছি পায়
    সেই ছিন্নমালা কুড়ায়ে নিরালা আজি রাখি হিয়ায়।
    বারে বারে ডাকি প্রিয় নাম ধ’রে তা’র।।
    হানি’ অবহেলা যারে দিয়েছি বিদায়
    আজি তারি স্মৃতি, সে কোথায় সে কোথায়।
    জ্বালি’ নয়ন-প্রদীপ জাগি বাতায়নে
    নিশি ভোর হয়ে যায় বৃথা জাগরণে
    আজি স্বর্গ শূন্য মোর তারি বিহনে
    কাঁদি আকাশ বাতাস মোর করে হাহাকার।।