নোটিশ বোর্ড

নজরুল সংগীতে অমূল্য অবদান রেখে যাওয়া বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী সুধীন দাসের মৃত্যুতে গভীর শ্রদ্ধা ও শোক জ্ঞাপন করছি।

গান শুনুন

Print

কালো মেয়ের পায়ের তলায়


বাণী

কালো মেয়ের পায়ের তলায় দেখে যা আলোর নাচন।
(তার) রূপ দেখে দেয় বুক পেতে শিব যার হাতে মরণ বাঁচন।।
কালো মায়ের আঁধার কোলে
শিশু রবি শশী দোলে
(মায়ের) একটুখানি রূপের ঝলক স্নিগ্ধ বিরাট নীল–গগন।।
পাগলী মেয়ে এলোকেশী নিশীথিনীর দুলিয়ে কেশ
নেচে বেড়ায় দিনের চিতায় লীলার রে তার নাই কো শেষ।
সিন্ধুতে মা’র বিন্দুখানিক
ঠিকরে পড়ে রূপের মানিক
বিশ্বে মায়ের রূপ ধরে না মা আমার তাই দিগ্‌–বসন।।


রাগ ও তাল

রাগঃ জৌনপুরী
তালঃ দাদ্‌রা


অডিও

শিল্পীঃ অনুপ ঘোষাল


Print

কারার ওই লৌহকপাট


বাণী

কারার ঐ লৌহ-কপাট
ভেঙ্গে ফেল্ কর্‌ রে লোপাট রক্ত-জমাট
শিকল-পূজার পাষাণ-বেদী!
ওরে ও তরুণ ঈশান!
বাজা তোর প্রলয়-বিষাণ! ধ্বংস-নিশান
উঠুক প্রাচী-র প্রাচীর ভেদি’॥
গাজনের বাজনা বাজা!
কে মালিক? কে সে রাজা? কে দেয় সাজা
মুক্ত-স্বাধীন সত্য কে রে?
হা হা হা পায় যে হাসি, ভগবান প’রবে ফাঁসি? সর্বনাশী –
শিখায় এ হীন্ তথ্য কে রে?
ওরে ও পাগ্‌লা ভোলা, দেরে দে প্রলয়-দোলা গারদগুলা
জোরসে ধ’রে হ্যাঁচকা টানে।
মার্‌ হাঁক হায়দরী হাঁক্ কাঁধে নে দুন্দুভি ঢাক ডাক ওরে ডাক
মৃত্যুকে ডাক জীবন-পানে॥
নাচে ঐ কাল-বোশেখী, কাটাবি কাল ব’সে কি?
দে রে দেখি ভীম কারার ঐ ভিত্তি নাড়ি’।
লাথি মার, ভাঙ্‌রে তালা! যত সব বন্দী-শালায় –
আগুন জ্বালা, আগুন জ্বালা, ফেল্ উপাড়ি॥

সিনেমাঃ ‘চট্রগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠন’

রাগ ও তাল

রাগঃ
তালঃ দ্রুত-দাদ্‌রা

Print

কা’বার জিয়ারতে তুমি কে যাও মদিনায়

বাণী

কাবার জিয়ারতে তুমি কে যাও মদিনায়।

আমার সালাম পৌঁছে দিও নবীজীর রওজায়।।

হাজীদের ঐ যাত্রাপথে

দাঁড়িয়ে আছি সকাল হতে,

কেঁদে বলি, কেউ যদি মোর সালাম নিয়ে যায়।।

পঙ্গু আমি, আরব সাগর লঙ্ঘি কেমন করে,

তাই নিশিদিন কাবা যাওয়ার পথে থাকি পড়ে।

বলি, ওরে দরিয়ার ঢেউ

মোর সালাম নিয়ে গেল না কেউ,

তুই দিস্‌ মোর সালামখানি মরুর লু’–হাওয়ায়।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ইমন-কল্যাণ

তালঃ কাহার্‌বা

 

Print

কানন গিরি সিন্ধু পার ফিরনু পথিক দেশ-বিদেশ

বাণী

কানন গিরি সিন্ধুপার ফির্‌নু পথিক দেশবিদেশ।
ভ্রমিনু কতই রূপে এই সৃজন ভুবন অশেষ।।
তীর্থপথিক এই পথের ফিরিয়া এলো না কেউ,
আজ এ পথে যাত্রা যার, কাল নাহি তার চিহ্ন লেশ।।
রাত্রি দিবার রঙমহল চিত্রিত এ চন্দ্রতাপ
দুদিনের এ পান্থবাস এই ভুবন এ সুখআবেশ।।
ভোগবিলাসী জমশেদের জল্‌সা ছিল এই সে দেশ,
আজ শ্মশান, ছিল যেথায় বাহ্‌রামেরআরাম আয়েশ।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ভীমপলশ্রী

তালঃ দাদ্‌রা

 

Print

কত যুগ যেন দেখিনি তোমারে

বাণী

কত যুগ যেন দেখিনি তোমারে দেখি নাই কতদিন।

তুমি যে জীবন, তোমারে না হেরি, হয়েছিনু প্রাণহীন।।

তুমি যেন বায়ু, বায়ু যবে নাহি বয়

আমি ঢুলে পড়ি আয়ু মোর নাহি রয়,

তুমি যেন জল, বাঁচিতে পারিনা জল বিনা আমি মীন।।

তুমি জানো নাগো তব আশ্রয় বিনা আমি কত অসহায়,

তুমি না ধরিলে আমার এ তনু বাতাসে মিশায়ে যায়।

তাই মোর দেহ পাগলের প্রায়

তোমার অঙ্গ জড়াইতে চায়,

তাই উপবাসী তনু মোর হের দিনে দিনে হয় ক্ষীণ।।

রাগ ও তাল

রাগঃ ভীমপলশ্রী

তালঃ দাদ্‌রা

 

Print

ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশীর ঈদ

বাণী

ও		মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ।
তুই		আপনাকে আজ বিলিয়ে দে শোন্‌ আসমানি তাগিদ।।
তোর		সোনা–দানা বালাখানা সব রাহেলিল্লাহ্‌।
দে		জাকাত মুর্দা মুসলিমের আজ ভাঙাইতে নিদ্‌।।
আজ		পড়বি ঈদের নামাজ রে মন সেই সে ঈদগাহে।
যে		ময়দানে সব গাজী মুসলিম হয়েছে শহীদ।।
আজ		ভুলে যা তোর দোস্ত ও দুশমন হাত মিলাও হাতে।
তোর		প্রেম দিয়ে কর বিশ্ব নিখিল ইসলামে মুরিদ।।
ঢাল		হৃদয়ের তোর তশ্‌তরিতে শির্‌নি তৌহিদের।
তোর		দাওয়াত কবুল করবে হজরত হয় মনে উম্মীদ।।

রাগ ও তাল

রাগঃ পিলু

তালঃ কাহার্‌বা

ভিডিও

লগইন

বাণী দেখা হয়েছে

গানের বাণী দেখা হয়েছে 1731520 বার

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে

ওয়েব সাইটটি দেখা হয়েছে 3929775 বার